May 25, 2024, 11:50 pm

কেশবপুরে আ:লীগের আয়োজনে সারাদেশে সিরিজ বোমা হামলার প্রতিবাদে আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত

শামীম আখতার, বিভাগীয় প্রধান (খুলনা) যশোরের কেশবপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের আয়োজনে ২০০৫ সালের ১৭ আগস্ট সারাদেশে বিএনপি জামায়াত জোট সরকারের আমলে নিষিদ্ধ জঙ্গি সংগঠন জেএমবি কর্তৃক একযোগে ঘৃণ্য ও নারকীয় সিরিজ বোমা হামলার প্রতিবাদে আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়েছে। ১৭ আগস্ট (বৃহস্পতিবার) সকালে উপজেলা আওয়ামী লীগের দলীয় কার্যালয়ে আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়।

আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠানে উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি এস এম রুহুল আমীন সভাপতিত্ব করেন।

উপজেলা আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক মফিজুর রহমান মফিজ এর সঞ্চালনায় আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন কেশবপুর পৌরসভার মেয়র ও পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি রফিকুল ইসলাম, উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি ও উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান এইচ এম আমীর হোসেন, উপজেলা আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি বাবু তপন কুমার ঘোষ মন্টু, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক গৌতম রায়, কৃষি বিষয়ক সম্পাদক এস এম বাবুর আলী, উপজেলা আওয়ামী যুবলীগের আহবায়ক ও পৌর কাউন্সিলর বি এম শহিদুজ্জামান শহিদ, উপজেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সভাপতি রাবেয়া ইকবাল, উপজেলা জাতীয় শ্রমিক লীগের আহবায়ক সরদার মুনসুর আলী প্রমূখ।

দোয়া মাহফিল পরিচালনা করেন উপজেলা কৃষক লীগের সভাপতি সৈয়দ নাহিদ হাসান।

এসময় উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ দপ্তর সম্পাদক মনোজ কুমার তরফদার, উপজেলা কৃষক লীগের সাধারণ সম্পাদক রমেশ দত্ত, উপজেলা সেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি আব্দুল গফুর (গফফার), সদর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক কবির হোসেন, হাসানপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত আহবায়ক জি এম সিরাজুল ইসলাম, মঙ্গলকোট ইউনিয়ন যুবলীগের যুগ্ম-আহবায়ক আল হেলাল, হাসানপুর ইউনিয়ন যুবলীগের যুগ্ম-আহবায়ক সাদ্দাম হোসেন, ইউপি সদস্য শাহানাজ পারভীন, যুবলীগ নেতা ফারুক হোসেন, ছাত্র লীগ নেতা সাইফুল ইসলামসহ আওয়ামী লীগ ও পৌর আওয়ামী লীগ, যুবলীগের বিভিন্ন পর্যায়ের নেতাকর্মীবৃন্দ।

উল্লেখ্য, ২০০৫ সালের ১৭ আগস্ট সারাদেশে একযোগে সিরিজ বোমা হামলা চালায় নিষিদ্ধ জঙ্গি সংগঠন জামায়াতুল মুজাহিদীন বাংলাদেশ (জেএমবি)। ওইদিন সকাল ১১টা থেকে শুরু করে ১১:৩০ মিনিটের মধ্যে ঢাকার ৩৪টি গুরুত্বপূর্ণ স্থাপনাসহ দেশের ৬৪ জেলার মধ্যে মুন্সীগঞ্জ জেলা বাদে ৬৩ জেলার সাড়ে ৪’শত স্পটে প্রায় ৫’শত বোমা বিস্ফোরণ ঘটায় জঙ্গিরা। জঙ্গিরা হাইকোর্ট, সুপ্রিমকোর্ট, জেলা আদালত, বিমানবন্দর, মার্কিন দূতাবাস, জেলা প্রশাসক, জেলা পুলিশ সুপারের কার্যালয়, প্রেসক্লাব ও সরকারি, আধা-সরকারি স্থাপনায় বোমা হামলা চালায়। আধা ঘণ্টার ব্যবধানে চালানো সিরিজ বোমা হামলায় দু’জন নিহত ও দুই শতাধিক মানুষ আহত হন। হামলার জায়গাগুলোতে জেএমবি জঙ্গিরা লিফলেট ছড়িয়ে দেয়।

এই বিভাগের আরও খবর


ফেসবুকে আমরা