September 16, 2021, 4:23 pm

করোনা চিকিৎসার নামে জনগনের পকেট কাটা হচ্ছে :

করোনা পরিস্থিতিতে বিত্তহীন মানুষ চিকিৎসাসেবা থেকে বঞ্চিত হচ্ছে। বিশেষ করে বেসরকারী হাসপাতালগুলো করোনা চিকিৎসার নামে মূলত জনগনের পকেট কাটছে বলে মন্তব্য করে বাংলাদেশ ন্যাপ মহাসচিব এম. গোলাম মোস্তফা ভুইয়া বলেন, বাংলাদেশের বিরাজমান বাস্তবতায় চিকিৎসা ব্যায়ের ব্যাপারে একটা হার নির্ধারণ করে দেওয়া খুবই জরুরী। করোনা চিকিৎসার চিকিৎসাবিধি সরকারি বা বেসরকারি হাসপাতালে অনুসরণ করা হচ্ছে কি না, তা কেউ দেখছেন না। সুতরাং বাড়তি ওষুধ বা পরীক্ষা–নিরীক্ষা বেশি হচ্ছে কি না, তা নজরদারির মধ্যে আনা উচিত।

মঙ্গলবার (৩ আগস্ট) বাংলাদেশ ন্যাশনাল আওয়ামী পার্টি-বাংলাদেশ ন্যাপ নরসিংদী জেলা আয়োজিত ভার্চুয়াল সভায় তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, হাসপাতালগুলোতে করোনা রোগিদের জিম্মি করে লুট করা হচ্ছে। হাসপাতালগুলো মুলত চিকিৎসার নামে জনগনের পকেট কাটার দায়িত্বটাই সঠিকভাবে পালন করেন। আবার এদের মালিকরা টিভিতে নীতিবাক্য বলতে বলতে গলা শুকিয়ে ফেলেন। অনেক ক্ষেত্রে দেখা যায় বেসরকারি অনেক হাসপাতালেই মানসম্পন্ন চিকিৎসাসেবা দেওয়া হচ্ছে না।

তিনি আরো বলেন, বেসরকারি হাসপাতালগুলো করোনা চিকিৎসা দিলে তারা তাদের মতো করেই বিল করবে। সেই বিল চিকিৎসাপ্রার্থীকে মেটাতেও বাধ্য করা হয়। বিল না মিটিয়ে কেউ হাসপাতাল ত্যাগও করতে পারে না। আবার অস্বাভাবিক বিল করলে তা চ্যালেঞ্জ করারও কোন উপায় থাকে না। ফলে জনগন প্রতিনিয়ত এদের দ্বারা শোষনের শিকার হচ্ছে।

তিনি বলেন, চিকিৎসা ক্ষেত্রে নিম্ন মধ্যবিত্ত ও দরিদ্র মানুষ বরাবরই অবহেলিত, প্রতারিত হয়ে আসছে। করোনা মহামারিতে চিকিৎসা সেবা হাতছাড়া হয়ে গেছে সাধারণ মানুষের। জমজমাট হয়ে উঠেছে অসৎ চিকিৎসা বাণিজ্য। এই সুযোগের সদ্বব্যবহার করছে হাসপাতাল মালিকরা।

এসময় আরো বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ ন্যাপ ভাইস চেয়ারম্যান স্বপন কুমার সাহা, যুগ্ম মহাসচিব এহসানুল হক জসীম, জেলা সমন্বয়কারী এখলাছুল হক, নির্বাহী সদস্য রবিউল আউয়াল, আবদুস সালাম, রফিকুল ইসলাম, সাইদা আমিন প্রমুখ।

এই বিভাগের আরও খবর


ফেসবুকে আমরা