April 12, 2024, 12:16 pm

দিনাজপুরে মাধ্যমিক শিক্ষা জাতীয়করণের দাবিতে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ সমাবেশ অনুষ্ঠিত

স্টাফ রিপোর্টারঃ দিনাজপুরে মাধ্যমিক শিক্ষা জাতীয়করণের দাবিতে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ সমাবেশ করেছে বাংলাদেশ শিক্ষক সমিতি (বি‌টিএ)।

মঙ্গলবার (১৩ জুন) দিনাজপুর জেলা প্রসাশক কার্যালয়ের সামনে এ মানববন্ধন ও বিক্ষোভ সমা‌বেশ অনুষ্ঠিত হয়। জেলার ১৩টি উপজেলার প্রায় সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের প্রায় পাঁচ হাজার শিক্ষক মানববন্ধনে অংশ নেয়। মানববন্ধন শেষে বিক্ষোভ মিছিল নিয়ে শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে জেলা প্রশাসকের কাছে প্রধানমন্ত্রী বরাবর স্মারকলিপি প্রদান করা হয়।

দিনাজপুর জেলা শিক্ষক সমিতির সহ সভাপতি মোঃ রফিকুল ইসলাম এর সভাপতিত্বে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ সমা‌বেশে দিনাজপুর জেলা শিক্ষক সমিতির সাধারণ সম্পাদক মাতলুবুল মামুন ব‌লেন, “দেশের শতকরা ৭৫ শতাংশ শিক্ষা প্রতিষ্ঠান পরিচালিত হয় এমপিওভুক্ত বেসরকারি শিক্ষক-কর্মচারী দ্বারা। কিন্তু পরিতাপের বিষয় এমপিওভুক্ত শিক্ষকরা মাত্র ১,০০০ (এক হাজার) টাকা বাড়ি ভাড়া, ২৫ শতাংশ উৎসব ভাতা এবং ৫০০ (পাঁচশত) টাকা চিকিৎসা ভাতা পেয়ে থাকেন। অথচ একই কারিকুলামের অধীন একই সিলেবাস, একই একাডেমিক সময়সূচি, একইভাবে প্রশ্নপত্র প্রণয়ন ও উত্তরপত্র মূল্যায়নের কাজে নিয়োজিত থাকা সত্বেও আর্থিক সুবিধার ক্ষেত্রে সরকারি ও বেসরকারি শিক্ষক-কর্মচারীদের বেতন বৈষম্য অনেক। যা কল্পনা করা যায়না।
তিনি আরো বলেন, বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান প্রতিষ্ঠান প্রধানদের বেতন স্কেল সরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের প্রতিষ্ঠান প্রধানদের বেতন স্কেলের একধাপ নিচে প্রদান করা হয়।
তাছাড়া সহকারী প্রধান শিক্ষকদের উচ্চতর স্কেল প্রদান না করার ফলে উচ্চতর স্কেলপ্রাপ্ত সিনিয়র শিক্ষকদের বেতন স্কেল ও সহকারী প্রধান শিক্ষকদের বেতন স্কেল সমান হওয়ায় সহকারী প্রধান শিক্ষকদের মধ্যে দীর্ঘ দিনের অসন্তোষ রয়েছে”।

এ সময় নেতৃবৃন্দ বলেন, “মাধ্যমিক শিক্ষা জাতীয়করণের এক দফা দাবীতে বাংলাদেশ শিক্ষক সমিতির কেন্দ্রীয় কমিটির নির্দেশে আমরা ধর্মঘট, মানববন্ধনসহ বিভিন্ন কর্মসূচি পালন করছি। আমরা চাই এই বাজেটে শিক্ষা খাতে বরাদ্ধ রেখে মাধ্যমিক শিক্ষার ক্ষেত্রে জাতীয়করণ করা হোক। তা না হলে আমরা বিদ্যালয়ে তালা ঝুলোনোসহ কঠোর আন্দোলনে যাবো”।
এ সময় দিনাজপুর জেলার সকল উপজেলার নেতৃবৃন্দ ও শিক্ষক/কর্মচারী উপস্থিত ছিলেন।

এই বিভাগের আরও খবর


ফেসবুকে আমরা