June 12, 2021, 6:46 pm

মতলবে সংখ্যালগু পরিবারের বাড়ী ঘর ভাংচুর!! দফায় দফায় হামলা

মতলব প্রতিনিধ:চার বছরের শিশুকে ধাক্কা দিয়ে ফেলে দেওয়ার প্রতিবাদ করায় এক হিন্দু পরিবারকে দফায় দফায় হামলার অভিযোগ পাওয়া গেছে। ঘটনাটি ঘটেছে মতলবের খাদেরগাঁও ইউনিয়নের ঘিলাতলী গ্রামে ।
সরজমিনে ভূক্তভোগী সুত্রে জানাযায় গত ৩১ মে সকালে ঘিলাতলী সুত্রধর বাড়ীর পাশ দিয়ে একই গ্রামের মৃত আঃ হাকিম সরকারের ছেলে নুরুল ইসলাম যাওয়ার সময় অপুর্ব নামের (৪) বছরের এক শিশু মটর সাইকেলের সামনে আসলে নুরুল ইসলাম তাকে ধক্কা দিয়ে ফেলে দেয় এ সময় তার মামা হেলান চন্দ্র সুত্রধরের ছেলে বিশ্বজিত কেন ধাক্কা দিয়েছে জনতে চাইলে তাদের মধ্যে কথা কাটাকাটি হয় একই মধ্যে বিশ্বজিত তাকে একটি ঘুশি মারলে তার মুখ দিয়ে রক্ত বের হতে থাকে এবং তার দাত পরে যায় । আহত নুরুল ইসলামকে চাঁদপুর সদর হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয় । এরই সুত্র ধরে নুরুল ইসলাম স্বজনরা বিশ্বজিতের পরিবারে ও তার বাড়ী ঘরে হামলা চালায়।
খবর পেয়ে বিকালে ইউপি সদস্য ইকবাল হাওলাদার ঘটনাস্থলে এসে উভয় পক্ষকে শান্ত থাকতে বলেন এবং বিষটি বসে সমাধান করা হবে বলে জানান ।
পর দিন দুপুর ১ টার সময় তারা ইউপি সদস্যের ও এলাকাবাসীর কথা অমান্য করে পুনরায় নুরল ইসলামের স্বজনরা হামলা করে এ সময় বিশ্বজিতকে ঘর থেকে জোর পুর্বক ধরে মাটিতে ফেলে বেধম প্রহার করে হান্নান, শরিফ, মুনছর,খোরশেদসহ আরো ১০ — ১৫ জন আহত বিশ্বজিতকে প্রথমে নারায়নপুর একটি প্রাইভেট হাসপাতালে পরে তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য চাঁদপুর সদর হাসপাতালে প্রেরন করা হয় । হামলার সময় বেরাতে আসা বিশ্বজিতের বোন জামাই সমীরের হাতে থাকা একটি এনডুয়েট মোবাইল নিয়ে যায় শরিফ ।
এ বিষয়ে বিশ্বজিতের ছোট ভাই সুশীল বলেন আমাদের বাড়ীতে একটি পারিবারিক অনুষ্ঠান ছিল
বাড়ীতে অনেক আত্বীয় স্বজন ছিল আমার ভাগিনাকে ধক্কা দিলে বড় ভাই জানতে গেলে নুরুল আমিন ভাইকে গালমন্দ করতে থাকে এ সময় দুজন ঝগরায় জরিয়ে পরেন এরই সুত্র ধরে তারা আলাদের বাড়ী ঘরে হামলা ও ভাংচুর করে । বর্তমানে আমার পরিবার নিরাপত্তা হীনতায় ভুগছি। ওরা যে কোন সময় বড় ধরনের ক্ষতি করতে পারে ।
এ বিষয়ে নুরুল ইসলামের মোবাইলে একাধিক বার চেষ্টা করেও তাকে পাওয়া যানি
এ ঘটনায় হেলান চন্দ্র সুত্রধর থানায় অভিযোগ করলে এসআই রুহুল আমিন ঘটনাস্হল পরিদর্শন করেন ।
এ বিষয়ে ইউপি সদস্য ইকবাল হাওলাদার বলেন আমি গিয়ে জাহাঙ্গীর সরকার, বোরহান সরকারসহ বাড়ীর সকলের সাথে কথা বলেছি এবং আমরা সবাই বসে সমাধান করবে কিন্তুু তারা আমার কথা না শুনে আবারও হিন্দু বাড়ীতে হামলা করেছে ।

এই বিভাগের আরও খবর


ফেসবুকে আমরা