January 23, 2021, 7:03 am

হরিণাকুন্ডুর জাবেরের দুই কিডনিই বিকল, জীবন বাঁচাতে সাহায্য প্রয়োজন

স্টাফ রিপোর্টার, ঝিনাইদহঃঝিনাইদহের হরিণাকুন্ডু উপজেলার জোড়াদহ গ্রামের সাহার মালিতার ছেলে। যে বয়সে মুষ্ঠিবদ্ধ হাতের আয় রোজগারে সংসার ভরে ওঠার কথা ছিল, সেই বয়সে জীবন যুদ্ধে নেমেছে পলাশ আহমেদ জাবের নামে এক যুবক। তিনি দুরারোগ্য ব্যাধিতে আক্রান্ত। মাত্র ৩০ বছর বয়সে দুই কিডনি বিকল হওয়ায় জীবন মৃত্যুর সন্ধিক্ষনে দাড়িয়ে আছে জাবের। পলাশ আহমেদ জাবেরের পরিবার দরিদ্র। চিকিৎসা করার মতো সাধ্য তাদের নেই। দুই কিডনি সংগ্রহ করে প্রতিস্থাপন করতে অনেক টাকার দরকার। তারপরও পরিবারটি সাধ্যমতো চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। জাবের একটি বেসরকারী কোম্পানীতে চাকরী করতেন। করোনার কারণে চাকরী হারিয়ে বাড়িতে আছে। এদিকে দিন যতই যাচ্ছে জাবেরের শারীরিক অবস্থা করুন হয়ে পড়েছে। রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের কিডনি বিভাগের প্রধান অধ্যাপক আমানুল্লাহ চৌধুরী জানিয়েছেন পলাশ আহমেদ জাবেরের কিডনি বিকল। তিনি ওই কলেজের ২১ নং বেডে ভর্তি আছেন। এখন ডায়ালাসিসের মাধ্যমে চলছে কিডনির কার্যক্রম। দ্রæত উন্নত চিকিৎসা করা না হলে অকালেই ঝরে পড়তে পারে জাবেরের জীবন। পলাশ আহমেদের পিতা সাহার মালিথা জানান, সহায় সম্বল যা ছিল সবই সন্তানদের মধ্যে ভাগ বন্টন করে দিয়েছি। নিজেই এখন দুবেলা খেতে পারিনা। ছেলেকে কি দিয়ে চিকিৎসা করাবো এই চিন্তায় ঘুম আসে না। তিনি তার আদরের ধন জাবেরের চিকিৎসায় সমাজের বিত্তবানদের কাছে সহায়তা চেয়েছেন। জাবেরকে সাহায্য পাঠানোর জন্য ০১৯১১৮০২৭১৪ (জাবের) ও চাচাতো ভাই মুজাহিদ ০১৯১৯৮৭৭২১৬ (বিকাশ) নাম্বারে যোগাযোগ করতে পারেন।

এই বিভাগের আরও খবর


ফেসবুকে আমরা