ঢাকা,বুধবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৭, ০৬:৪২ অপরাহ্ন ঢাকা,মঙ্গলবার, ১৮ Jul ২০১৭, ১২:১৫ অপরাহ্ন
চাঁদপুর-২ আসনের নির্বাচনী হালচাল আসন পুনরুদ্ধারে ‘বিএনপির’ তানভীর হুদার বিকল্প নেই
     

মনিরুল ইসলাম মনিরঃ আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচনে চাঁদপুরের সবচেয়ে আলোচিত আসন এখন চাঁদপুর-২ আসনটি। এখানে বরাবরই ভোটের লড়াই হতো বিএনপির সাবেক প্রতিমন্ত্রী, ৪ বারের সাংসদ ও বিএনপি চেয়ারপার্সনের উপদেষ্টা মরহুম মোঃ নূরুল হুদা ও আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় নেতা ত্রাণমন্ত্রী মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়ার মধ্যে। এই আসনে বরাবরই প্রতীকের পাশাপাশি এই দুই নেতার ব্যাক্তি ইমেজ অনেক বড় ফ্যাক্টর ছিলো। কিন্তু নূরুল হুদা গত ২৫শে জানুয়ারি মৃত্যুবরণ করায় মতলব বিএনপিতে এক বিরাট শূন্যতা দেখা দেয়। মতলবের এই জনপ্রিয় ৪ বারের সাংসদের হাজার হাজার নেতাকর্মী অভিবাবক শুন্য হয়ে পরে। এই কারণে আসন্ন নির্বাচনে চাঁদপুরের টক অফ দি টাউন হচ্ছে চাঁদপুর-২ আসনে কে হচ্ছেন আগামী দিনের বিএনপির প্রার্থী। আমাদের নিজস্ব প্রতিনিধি দ্বারা মাঠ পর্যায়ের ব্যাপক অনুসন্ধানের ভিত্তিতে জানা যায় যে, মতলব বিএনপির অধিকাংশ নেতৃবৃন্দ যারা তৃনমূল পর্যায়ে কাজ করেন এবং এলাকার সাধারণ জনগণ মনে করেন একমাত্র মরহুম নূরুল হুদা সাহেবের উত্তরসূরি বড় ছেলে তানভীর হুদার মাধ্যমে চাঁদপুর-২ আসনটি আবারো বিএনপির পুনরুদ্ধার করা সম্ভব। আওয়ামী লীগের শক্তিশালী প্রার্থী মায়া চৌধুরীর বিরুদ্ধে মরহুম নূরুল হুদা সাহেবের জনপ্রিয়তা ও সাধারণ জনগণের আবেগকে কাজে লাগিয়ে একমাত্র তানভীর হুদার পক্ষেই সম্ভব বিএনপিকে বিজয়ী করা। তাছাড়া তানভীর হুদা বিগত ১৪ বছর যাবত বিএনপির রাজনীতির সাথে যুক্ত। একটি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের সহকারী অধ্যাপক তানভীর হুদা শিক্ষিত, ভদ্র ও পরিচ্ছন্ন ব্যাক্তি হিসেবে এলাকায় সুপরিচিত। বিএনপির নেতাকর্মীদের সাথে রয়েছে তার সুদৃঢ় সম্পর্ক। এই সরকারের আমলে তার নামে দুটি রাজনৈতিক মামলাও হয়েছে। কিন্তু রাজনৈতিক বিভিন্ন কর্মসূচীতে তার অংশগ্রহণ কম বলে কিছু কিছু নেতাকর্মী অভিযোগ করেছেন। এছাড়াও চাঁদপুর-২ আসনে বিএনপির অন্যান্য মনোনয়ন প্রত্যাশীরা হচ্ছেন বিএনপি চেয়ারপার্সনের উপদেষ্টা আতাউর রহমান ঢালি, উপদেষ্টা এডভোকেট বোরহানউদ্দিন, নির্বাহী কমিটির সদস্য ড. জালালউদ্দিন, ঢাকার সাবেক কমিশনার আনোয়ারুজ্জামান, মতলব দক্ষিণের সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান শুক্কুর পাটোয়ারী, সাবেক সাংসদ আলম খান, সাবেক ছাত্রনেতা মোস্তফা খান সফরী, ওবাইদুর রহমান টিপু এবং ঢাকা মহনগর নেতা হাজী মোয়াজ্জেম ।

Comments are closed.